অঞ্জলি দিয়ে আইনি নোটিশ পাচ্ছেন সৃজিত-মিথিলা

অঞ্জলি দিয়ে আইনি নোটিশ পাচ্ছেন সৃজিত-মিথিলা
অঞ্জলি দিয়ে আইনি নোটিশ পাচ্ছেন সৃজিত-মিথিলা

স্বামীর সঙ্গে কলকাতার একটি পূজামণ্ডপে গিয়ে শনিবার (২৪ অক্টোবর) মহাষ্টমীর অঞ্জলি দিয়েছিলেন অভিনেত্রী মিথিলা। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আরেক অভিনেত্রী ও তৃণমূল সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান এবং তার স্বামী।

তবে ‘নো এন্ট্রি জোনে’ ঢুকে অঞ্জলি দিয়ে আইনি নোটিশ পেতে পারেন সৃজিত-মিথিলা। এ তালিকায় আছেন সাংসদ-অভিনেত্রী নুসরাত জাহান, সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নুসরাত-সৃজিতরা অঞ্জলি দিয়েছেন হাইকোর্ট নির্ধারিত মণ্ডপের ‘নো এন্ট্রি জোনে’। সেখান থেকেই জন্ম হয়েছে বিতর্কের। কারণ, কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দুই বিচারপতি স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছিলেন।

মণ্ডপের চারদিকে ব্যারিকেড করে তৈরি করতে হবে ‘নো এন্ট্রি জোন’। সেই ‘নিষিদ্ধ’ এলাকায় পূজার উপাচারের প্রয়োজনে উদ্যোক্তাদের তরফে আদালতের ঠিক করে দেয়া সংখ্যার কয়েকজন ঢুকতে পারবেন বলে নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।

আদালতের ‘নির্দেশ’ ভেঙে মিথিলা-নুসরাতদের ওই মণ্ডপে ভিড় করার ঘটনাকে আদালতে ‘হাতিয়ার’ করতে চলেছেন পূজা মামলার আইনজীবীরা। মামলার আবেদনকারীর আইনজীবীদের বক্তব্য- আদালতের নির্দেশ সবার জন্যই প্রযোজ্য।

সেক্ষেত্রে জনপ্রতিনিধিদের নিয়ম মানার ক্ষেত্রে আরও ইতিবাচক’ ভূমিকা নেয়া প্রয়োজন। কিন্তু বাস্তবে তা দেখা যায়নি।

লক্ষ্মীপূজার পর আদালতের নির্দেশ কতটা পালন করা হল, সে বিষয়ে আদালতে হলফনামা জমা দিতে হবে রাজ্যকে। পূজা মামলার সঙ্গে যুক্ত আইনজীবীদের তরফে ইঙ্গিত মিলছে, পরবর্তী শুনানির সময় এদিনের অঞ্জলি দেয়ার ঘটনাকে হাতিয়ার করতে পারেন মামলাকারী। তবে এখনই মামলাকারী নুসরাত, মিথিলা বা সৃজিতদের আইনি নোটিশ পাঠাবেন কি না, তা নিয়ে কোনো নিশ্চিত জবাব পাওয়া যায়নি।

admin123

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *